Home / প্রযুক্তি / ইন্টারনেট / ফেসবুক এ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা বৃদ্ধি করুন সহজেই!

ফেসবুক এ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা বৃদ্ধি করুন সহজেই!

ফেসবুকের ব্যবহার ও অপব্যবহার দিন দিন বেড়েই চলছে। ফেসবুক এ্যাকাউন্ট হ্যাক হওয়া এবং সেই এ্যাকাউন্টে অশ্লিল ছবি, ভিডিও অপলোডের ঘটনা, হুমকি ইত্যাদি অনেক বেড়ে চলছে। কিন্তু কিভাবে ফেসবুক এ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা বৃদ্ধি ও গোপনীয়তা রক্ষা করা যায় তা অনেকে জানেন না। ফলে এ্যাকাউন্ট হ্যাক হওয়া এবং ট্যাগ হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়। তাই জেনে রাখুন ফেসবুক এ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা বৃদ্ধি করা যায় কিভাবে।
১. নূন্যতম ৮-১০ সংখ্যার পাসওয়ার্ড দিন। এটি করতে হলে Settings-General-Password-এ গিয়ে করতে পারবেন। পাসওয়ার্ডে ছোট ও বড় হাতের বর্ণ, সংখ্যা, সাংকেতিক চিহ্ন (%@#$* ইত্যাদি) ব্যবহার করুন। জন্ম তারিখ, সাল, প্রিয়জনের নাম, ১ থেকে ৮ ক্রম সংখ্যা দেওয়া থেকে বিরত থাকুন।
২. মোবাইল নম্বর ব্যবহার করে ‘লগইন অ্যাপ্রুভাল’ অপশনটি সেট করে নিন। ফলে অন্য কেউ সহজেই আপনার ফেসবুকে ঢুকতে পারবে না। অর্থাৎ কেউ অন্য কোথাও থেকে আপনার এ্যাকেউন্টে ঢুকতে চাইলে প্রথমে একটি লগইন কোড চাইবে (৬ সংখ্যার)। এটি দেওয়ার পর ফেসবুকে প্রবেশ করা যাবে। এটি করতে হলে Settings-Security-Login Approvals- Require a security code to access my account from unknown browsers-Mobile Number add -এ গিয়ে করতে পারবেন।
৩. মোবাইল ও ইমেইল এলার্ট দিন। আপনার ফেসবুক এ্যাকাউন্টে আপনার মোবাইল নম্বর এবং ইমেইল ঠিকানাটি সেট করে নিন। অন্য কেউ আপনার ফেসবুকে লগইন করলে প্রথমে একটি সিকিউরিটি এলার্ট আপনার মোবাইলে এবং ইমেইল আসবে। ফলে আপনি সহজেই বুঝতে পারবেন যে অন্য কেউ আপনার ফেসবুকে প্রবেশের চেষ্টা করছে কি না। এটি করতে হলে Settings-Security- Login Alerts-Get Notifications and Email logins alerts-এ গিয়ে করতে পারবেন।
৪. অনেক সময় আপনার এ্যাকাউন্টে কেউ কোনো পোস্ট ট্যাগ করে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলতে পারে। তাই এটি বন্ধ করতে হলে Timeline and Tagging- Who can add things to my timeline-Only me-এই অপশটি ঠিক করে নিন। যদি ট্যাগ অপশন রাখতে চান তবে ট্যাগকৃত বিষয়টি যেন আপনাকে আগে দেখায় এমন অপশনটি নির্বাচন করুন।

মনে রাখবেন, ফেসবুক প্রোফাইলে আপনার সঠিক জন্ম তারিখ, মোবাইল নম্বর, ঠিকানা, কর্মস্থালের ঠিকানা ইত্যাদি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য না দেওয়া ভালো। তাই আপনার প্রোফাইল এবং টাইমলাইন পাবলিক করবেন না। অপরিচিতি কোনো ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট গ্রহণ করবেন না। নিশ্চিত হওয়ার জন্য তার ছবি, তার প্রয়োফাইলে আপনার অন্য কেউ পরিচিত আছে কি না তা দেখে নিতে পারেন। কোনো পরিচিত বা অপরিচিত বন্ধু কোনো লিংক পাঠালে (গেমস কিংবা কোনো অ্যাপসের) তা গ্রহণ করবেন না। আপনি অন্য কোনো স্থানে বা কম্পিউটারে ফেসবুক ব্যবহার করলে তা ভালোভাবে সাইন আউট করবেন।

ফেসবুকের ব্যবহার ও অপব্যবহার দিন দিন বেড়েই চলছে। ফেসবুক এ্যাকাউন্ট হ্যাক হওয়া এবং সেই এ্যাকাউন্টে অশ্লিল ছবি, ভিডিও অপলোডের ঘটনা, হুমকি ইত্যাদি অনেক বেড়ে চলছে। কিন্তু কিভাবে ফেসবুক এ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা বৃদ্ধি ও গোপনীয়তা রক্ষা করা যায় তা অনেকে জানেন না। ফলে এ্যাকাউন্ট হ্যাক হওয়া এবং ট্যাগ হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়। তাই জেনে রাখুন ফেসবুক এ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা বৃদ্ধি করা যায় কিভাবে। ১. নূন্যতম ৮-১০ সংখ্যার পাসওয়ার্ড দিন। এটি করতে হলে Settings-General-Password-এ গিয়ে করতে পারবেন। পাসওয়ার্ডে ছোট ও বড় হাতের বর্ণ, সংখ্যা, সাংকেতিক চিহ্ন (%@#$* ইত্যাদি) ব্যবহার করুন। জন্ম তারিখ, সাল, প্রিয়জনের নাম, ১ থেকে ৮ ক্রম সংখ্যা দেওয়া থেকে বিরত থাকুন।…

Review Overview

User Rating: Be the first one !

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*