Home / প্রযুক্তি / ইন্টারনেট / ইমেইল প্রতারণা হতে সাবধান

ইমেইল প্রতারণা হতে সাবধান

ইমেইলের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন ধরণের প্রতারণা চলে। এই সব প্রতারক চক্র খুব সুন্দর করে চিঠি লিখে ইন্টারনেটের মাধ্যমে বেশ কিছু ইমেইল ঠিকানা সংগ্রহ করে তাদের ইমেইল করে থাকে। অনেক সময় তারা কোনো সরকারি অফিসের নাম, ঠিকানা ও অফিসিয়াল প্যাড ব্যবহার করে ইমেইল দিয়ে থাকে। এই ধরণের প্রতারণাকে বলে ইমেইল স্ক্যাম বা লটারী স্ক্যাম। অসচেতনতার কারণে অনেকে এর শিকার হয় নানা ভাবে। ইমেইলে মাধ্যমে যে সব মেইল আছে তার কয়েকটি সংক্ষেপে তুলে ধরা হলো।

অনেকের কাছে ইমেইল আসে এইভাবে- আপনার ইমেইল ঠিকানা আমাদের অনলাইন লটারীতে বিজয়ী হয়েছে। আপনি বিজয়ী অর্থ গ্রহণের জন্য আপনার নাম, ঠিকানা, ব্যাংক এ্যাকাউন্ট, জন্ম তারিখ ইত্যাদি দ্রুত পাঠান। আবার অনেকের কাছে ইমেইল আসে, আপনার সিভি/জীবন বৃত্তান্ত দেখে আপনাকে নিয়োগ দেবার জন্য আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আপনি আপনার পাসপোর্টের, শিক্ষাগত যোগ্যতার কাগজপত্রের স্ক্যান কপি পাঠান কিংবা আমাদের ঠিকানায় পাঠান। প্রতারণার আরেকটি ইমেইল হচ্ছে, আমি দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত এবং হসপিটালে রয়েছি। আমার বাঁচার কোনো সম্ভাবনা নেই। আমার এ্যাকাউন্টে ১/৫ মিলিয়ন ডলার রয়েছে। আমার কোনো নিকট আত্নীয় নেই বলে আমি আপনার দেশের গরীব মানুষের কল্যাণে এই অর্থ দান করে দিতে চাই। আপনি যদি আমাকে এই ব্যাপারে সহায়তা করতে চান তাহলে আপনার নাম, ঠিকানা, ব্যাংক এ্যাকাউন্ট নম্বর দিয়ে পাঠান। উক্ত মেইলগুলো হচ্ছে ইমেইলের মাধ্যমে অর্থ আত্নসাৎ ও তথ্য চুরির প্রথম ধাপ। এরপর কেউ যদি তার সকল তথ্য প্রতারককে প্রদান করে তবে সে তার প্রতারণার প্রথম ফাঁদে পা দিলো। এরপর ঐ প্রতরণাকারী বিশ্বাস অর্জনের জন্য কিছু প্রয়োজনী ও সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র আপনার ঠিকানায় পাঠাবে এবং কয়েকটি ফরম পূরণ করে পাঠাতে বলে থাকে। এটি হলো প্রতারণার ২য় ধাপ বা ফাঁদ। এরপর যা হয় তা হলো, আপনাকে এবার জানানো হবে যে আপনার সকল কাগজপত্র আমরা তৈরী করেছি যেমন- ভিসা, ব্যাংক ক্লিয়ারেন্স, নিয়োগ পত্র ইত্যাদি। আপনাকে এই কাগজপত্র প্রসেসিং ফি বাবদ ১০০/২০০ ডলার প্রদান করতে হবে যা আপনি আমাদের ব্যাংক এ্যাকাউন্ট নম্বরে বা ক্রেডিট কার্ডের  মাধ্যমে দিতে পারবেন। এবার আপনি যদি কোনো অর্থ দিয়ে থাকে তাহলে তারা আপনাকে আবারও কিছু কাগজপত্র পাঠাবে এবং তা পূরণ করে পাঠাতে বলবে। এভাবে তারা কোনো অজুহাতে আবারও টাকা চাইবে। যতক্ষণ আপনি টাকা দিতে থাকবেন ততক্ষণ এই প্রতরণা চলতে থাকবে বিভিন্ন কৌশলে। তাই সাবধান হোন এখন থেকেই। মনে রাখবেন, আপনি কোথাও চাকরির জন্য আবেদন করেননি, কোথাও কেনো লটারীতে অংশগ্রহণ করেননি তাহলে কেন আপনি তাদের প্রতারণার ফাঁদে পা দিবেন? তাই এই সব ইমেইলের উত্তর দেওয়া থেকে বিরত থাকুন।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*